1. [email protected] : BD News : BD News
  2. [email protected] : Breaking News : Breaking News
‘জনপ্রিয় নেতাদেরকেই বিএনপি থেকে বাদ দেয়া হচ্ছে’ | News12
January 22, 2022, 7:59 pm

‘জনপ্রিয় নেতাদেরকেই বিএনপি থেকে বাদ দেয়া হচ্ছে’

Staff Reporter
  • Update Time : Sunday, December 26, 2021
  • 152 Time View

বিএনপিতে গৃহদাহ কিছুতেই থামছে না। দলের ভিতরে বিশৃঙ্খলা-কোন্দল ক্রমশ প্রকাশ্য রূপ নিতে শুরু করেছে। আজ খুলনা জেলার বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সম্পাদক এবং খুলনায় বিএনপির অন্যতম জনপ্রিয় নেতা নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

কেন তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে কোনো ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। নজরুল ইসলাম মঞ্জু বিএনপি’র খুলনার অন্যতম জনপ্রিয় নেতা। তার হাত দিয়েই খুলনায় এখন পর্যন্ত বিএনপি টিকে আছে বলে স্থানীয় জনগণ মনে করেন।

সেই নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে আজ দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হলো। মজার ব্যাপার হল যে এ ধরনের অব্যাহতি দেওয়ার ক্ষেত্রে যে ন্যূনতম গঠনতান্ত্রিক রীতিনীতি অনুসরণ করা হয় না। সাধারণত একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলে কোন ব্যক্তিকে দল থেকে অব্যাহতি দিতে হলে তার বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিতে হয়।

তিনি শৃঙ্খলা ভঙ্গের কি অপরাধ করেছেন সে সম্পর্কে সুস্পষ্টভাবে তাকে জানাতে হয়, তারপর তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হয়। কিন্তু এখানে নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে ভৌতিকভাবে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে বলে তার সতীর্থরা জানিয়েছেন। বিএনপির খুলনা জেলার একজন নেতা বলেছেন যে, স্থায়ী কমিটির কোন বৈঠক নাই, কে এই অব্যাহতি দিল সেই সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট কোন নির্দেশনা নাই।

বিএনপির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী রুহুল কবির রিজভীর কোন সাংগঠনিক এখতিয়ার নেই কোন কেন্দ্রীয় নেতাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার। অথচ তাকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন রুহুল কবির রিজভী যিনি বিএনপির একজন সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

তাহলে তিনি কিভাবে এই চিঠি দিলেন তা নিয়ে বিএনপির ভেতর তোলপাড় চলছে। শুধু তাই নয় এর আগে কুমিল্লা জেলার বিএনপির জনপ্রিয় মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকেও দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছিল, তার সাথেও দলের টানাপোড়েনের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

সিলেটে বিএনপির মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সাথেও দলের সম্পর্ক ভালো নেই। যতই বিএনপির আন্দোলনমুখী হতে চাইছে ততই বিএনপির মাঝে যারা জনপ্রিয় নেতা তাদেরকে বেছে বেছে অব্যাহতি দেয়া হচ্ছে। এ নিয়ে দলের মধ্যে তোলপাড় শুরু হয়েছে বলে বিভিন্ন সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এর আগে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণে কমিটি করা হয়েছিল। সেই সময় কমিটির জন্য সবচেয়ে যোগ্য, দক্ষ হিসেবে যারা বিবেচিত ছিলেন তাদেরকে বাদ দিয়ে অবসরপ্রাপ্ত এবং আনকোরাদেরকে কমিটিতে নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। বিএনপির মাঝে দুটি ধারা সুস্পষ্ট রয়েছে। একটি, বেগম খালেদা জিয়ার অনুসারী, যারা দলের ভেতর এবং জনগণের কাছে জনপ্রিয়। দ্বিতীয়টি, তারেক জিয়ার অনুসারী, যারা শুধুমাত্র তারেক জিয়ার অনুগ্রহেই বিএনপিতে টিকে আছেন।

ক্রমশ বিএনপি তারেক জিয়ার অনুসারীদের দখলে চলে যাচ্ছে বলেই বিএনপি নেতারা মনে করেন। তার ফলাফল হিসেবে নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে বলেই বিভিন্ন মহল মনে করছে।

হঠাৎ করে কেন নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো এ ব্যাপারে অনুসন্ধান করে দেখা গেছে যে তারেক জিয়ার সঙ্গে তাঁর বনিবনা হচ্ছিল না। তারেক জিয়ার বিভিন্ন সিদ্ধান্তের ব্যাপারে যারা সরাসরি আপত্তি করছিলেন তাদের মধ্যে নজরুল ইসলাম মঞ্জু ছিলেন অন্যতম।

সম্প্রতি একটি ভিডিও কনফারেন্সে তারেক জিয়ার সঙ্গে তার উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয় বলেও একটি অসমর্থিত সূত্র নিশ্চিত করেছে। তবে বিএনপির একাধিক নেতা বলেছেন বিষয়টি এরকম নয় বরং বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাথে নজরুল ইসলাম মঞ্জুর সম্পর্ক দীর্ঘদিন ধরে খারাপ।

উল্লেখ্য যে নজরুল ইসলাম মঞ্জু বিএনপি নেতাদেরকে বিভিন্ন সময়ে সমালোচনা করেছেন। ঘর থেকে বেরিয়ে তারা যেন আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত হন সে ব্যাপারে আহ্বান জানিয়েছেন। সেটি তাঁর অব্যাহতির কারণ কিনা সেটি নিশ্চিত নয়। তবে বিএনপির একাধিক নেতা বলছে বিএনপি’ সামনের দিনগুলোতে যত আন্দোলনের দিকে এগোবে ততই বিএনপির মধ্যে এ ধরনের ভাঙ্গন-কোন্দল প্রকাশ্য রূপ নিবে। কারণ বিএনপিতে এখন গৃহদাহ একটি প্রকাশ্য ব্যাপার।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

Releted
কপিরাইট : সর্বস্বর্ত সংরক্ষিত (c) ২০২২
Develper By ITSadik.Xyz