করণার ধবল না যেতেই ৫০০ কোটি টাকা আদায়ে বাড়িতে বাড়িতে অভিযান ডিএনসিসি’র

0
546

বকেয়া চারশ’ কোটি টাকা হোল্ডিং ট্যাক্সসহ ৫শ’ কোটি টাকা আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে প্রতিটি বাড়িতে অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন।

মঙ্গলবার (০১ সেপ্টেম্বর) সকালে মোহাম্মদপুরে চিরুনি অভিযানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র আতিকুল ইসলাম এ কথা জানান। অভিযানে তিনটি ব্যাংকের শাখাসহ বেশ কয়েকটি বাড়ির মালিক ও প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে ৫ লাখ টাকার বেশি জরিমানা করা হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে শাখা খোলার অনুমতি নিলেও সিটি করপোরেশনের কাছ থেকে নেয়া হয়নি ট্রেড লাইসেন্স। মঙ্গলবারের (০১ সেপ্টেম্বর) অভিযানে তাই বন্ধ করে দেয়া হয় ইসলামী ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ও ইউসিবি ব্যাংকের বসিলা শাখা। অবৈধভাবে বিলবোর্ড টাঙানোর দায়ে করা হয় জরিমানাও।

পারটেক্স ও স্বপ্নের শোরুমকেও মোটা অঙ্কের জরিমানা করেন ঢাকা উত্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া, হোল্ডিং ট্যাক্স না দেয়ায় আরো কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ও বাড়ির মালিককে জরিমানা করা হয়।

প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. আব্দুল হামিদ মিয়া বলেন, তারা এত বড় বড় অফিস করেছে অথচ তাদের বেশিরভাগেরই লাইসেন্স নাই।
এর আগে, চিরুনি অভিযানের উদ্বোধন করে উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, বেশিরভাগ বাড়ির মালিকেরই হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে অনীহা রয়েছে।

মেয়র বলেন, ৪০০ কোটি টাকা আমরা ট্যাক্স কালেকশন করবো। ১০০ কোটি টাকা নেব ট্রেড লাইসেন্সধারীদের থেকে।

প্রথম দিনে উত্তর সিটির ৩৩ নাম্বার ওয়ার্ডে অভিযান চালানো হয়।