ভারতকে ফের বাধা দিল নেপাল

0
261

নেপাল সীমান্তে ভারতের একটি রাস্তা তৈরির কাজে ফের বাধা দিয়েছে নেপাল। এবার নেপাল সীমান্তবর্তী ভারতের বিহার রাজ্যে রাস্তা তৈরির কাজে বাধা দিয়েছে দেশটি। এর আগেও সীমান্তে ভারতের রাস্তা তৈরির কাজে বাধা দিয়ে রীতিমতো কাজ বন্ধ করতে বাধ্য করেছে নেপাল।

ভারতের বিহার রাজ্যে প্রশাসন জানিয়েছে, সীমান্তের কাছে একটি রাস্তা মেরামতের কাজ চলছে। আর তা নিয়েই আপত্তি জানিয়েছে নেপাল। নেপালের এমন ব্যবহারে রীতিমত চ’মকে গিয়েছে বিহার প্রশাসন। নেপাল সীমান্তবর্তী বিহারে সীতামারি-ভিটামোর রোডের কাজ চলছিল। বিহারের সীতামারি জেলায় অবস্থিত ওই রাস্তা। সেই কাজ হঠাৎ থামিয়ে দিতে বলে নেপাল

বিহারের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সীমান্তের কাছাকাছি ওই রাস্তা। সেই রাস্তা চওড়া করতে আপত্তি জানিয়েছে নেপাল। বিহারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে এই সমস্যা সমাধানের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

কিছুদিন আগেও বন্যা রুখতে বিহার সরকারের বেশ কয়েকটি কাজে বাধা দিয়েছে নেপাল। লাদাখে চীনা আগ্রাসনের পর থেকেই ভারতজুড়ে প্রতিবেশী ওই দেশ থেকে আমদানি করা সব দ্রব্য বয়কটের ডাক ক্রমেই তী’ব্র হচ্ছে। এরই মধ্যেই ভারতের প্রতিবেশী দেশ নেপালের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হচ্ছে।
ভারতের বেশ কয়েকটি এলাকা নিজেদের মানচিত্রে তুলে এনেছে নেপাল। কাঠমান্ডুর দা’বি, ওই এলাকাগুলি নেপালেরই অংশ। এমনকী নেপাল সংসদে তাঁদের নয়া মানচিত্র পাস করিয়েও নেওয়া হয়েছে। যদিও নেপালের এই দাবিকে পাত্তা দেয়নি ভারত।

নেপালের এই আপ’ত্তির কারণে বিহারের এক মন্ত্রী উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন। বিহারের গা ঘেঁষেই রয়েছে নেপাল সীমান্ত। বর্ষা শুরুর আগে থেকেই বিহার সরকারের তরফে সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় বন্যা রুখতে বেশ কিছু কাজ চলছে। সেসব কাজে প্রতি মুহূর্তে বাধা দিচ্ছে নেপাল। যার কারণে বন্যা রোধে নেওয়া ওই প্রকল্পের কাজ চালাতে অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে বিহার রাজ্য সরকারের।

নেপালের এই আচরণের তী’ব্র নিন্দা করেছেন বিহারের ওই মন্ত্রী। এ বিষয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তিনি। যদিও এ বিষয়ে কোনো সাড়া মেলেনি। সূত্র : কলকাতা ২৪।