1. [email protected] : BD News : BD News
  2. [email protected] : Breaking News : Breaking News
  3. [email protected] : sohag :
মৃত্যুর আগে ফেসবুক লাইভে যা কিছু বলেছিলেন সাংবাদিক শিরিন | News12
January 29, 2022, 8:11 am

মৃত্যুর আগে ফেসবুক লাইভে যা কিছু বলেছিলেন সাংবাদিক শিরিন

Staff Reporter
  • Update Time : Monday, October 28, 2019
  • 138 Time View

মৃত্যুর আগে ফেসবুক লাইভে যা কিছু বলেছিলেন শিরিন তা পাঠকের জন্য হুবাহু তুলে ধরা হলো :

আমি দেশের কাছে জনগনের কাছে বিচার চাচ্ছি । এখানের এক মেডিসিন ব্যবসায়ি জনির বৌ আমার জীবর অতিষ্ট করে তুলছে।

যার দরখাস্তের ফলে আমার কথা না চিন্তা ভাবনা করে এ এলাকার দোকানদাররা তাদের কথা মতো আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আমার কাছ থেকে কেড়ে নিয়ে আমাকে বিদায় করে দিচ্ছে।

উপরে রয়েছে তারা সকালে বলে এক কথা বিকালে বলে আরেক মিথ্যা কথা। রনি এফ আর মেডিসিন হাউজের রনি সকালে বলছে তার জনির বউ আইসা তাদের কাছে হাত কাইন্দা পড়ছে এর জন্য আার বিরুদ্ধে কমপ্লেইন করছে।

এখন যখন তাদের কাছে প্রমান করতে বলছি  গেছি তখন তারা বলতেছে যে না তারা বলে নাই। এই সচি মেডিকেলের এই এলাকার কমিশনার কমিশনারের কাছে হাতপা আমি অনেক ধরছি।

যে ভাইয়া আমার এ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটা রক্ষা করেন আমারকে বাঁচান আমার কি দোষ?

কিন্তু আমার কথা কেউ শোনে নাই।কেই আমাকে বাচানোর চেষ্ঠা করে নাই। আমার কাছ থেকে জোর করে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটা কাইরা নেওয়া হইছে।তাদের কাছে আমি বারবার লিখিত অভিযোগ দিছি।

যেটা আমার ব্যাগের মধ্যে আছে যে ভাই আমি সবার কথা মাইন্না এখানে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করবো।

কিন্তু এ এলাকার কয়েস মেয়া,রনি আর জনির বউ আর কমিশনার এ কয়জনে আমারে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটা কাইড়া নিয়া আমারে বাধ্য করে ১ তারিখের মধ্যে ব্যবসা বানিজ্য না ছাড়লে আমারে মানে জোর কৈরা আমার দোকানে তালা দিবে আমারে মাইরা ফেলাবে এ ধরনের হুমকি ধামকি দিচ্ছে।

আপনার এ জনি, জনির বউ এই রনি ,কমিশনার আর এ সচি মেডিকেলের কয়েস মেয়ার বিচারের ভার আপনাদের কাছে দিয়ে গেলাম।

আর একটা লোক এই মারুফের উসকানিতে মিলে মারুফের এক বন্ধু আলো এ কয়জন মিলে আমার জীবটা শেষ করে দিল আমারে বাচতে দিল না।এদের অত্যাচারে আমি শেষ।আমি বিচার জনগনরে দিলাম

জনগন এটার বিচার করবে। আমি সেই আশায় রৈলাম।

একটি সূত্র জানায়- সম্প্রতি শিরিন ‘আজকের ক্রাইম নিউজ’ নামে একটি অনলাইন নিউজপোর্টাল করেন। এতদিন পত্রিকাটিতে তার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দেখা গেলেও রোববার থেকে রাত থেকে দেখা যাচ্ছে না। নামটি তার মৃত্যুর আগে না পরে সরিয়ে দেওয়া হয় এবং কেন সরানো হলো তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়- শিরিন বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় লেখালেখির সুবাদে আগ থেকেই তার বরিশালের সংবাদকর্মীদের সু-সম্পর্ক ছিল। সাম্প্রতিকালে র‌্যাব তার ব্যাবসাপ্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে বেশকিছু মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ উদ্ধার করে। সেই ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে বেশ কয়েকদিনের সাজা দিলে তিনি হাজতবাসও করেন। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পত্রিকায় তার বিরুদ্ধাচারণ করে বেশকিছু প্রতিবেদন প্রকাশ করায় তিনি পরবর্তীতে কারাগার থেকে বেড়িয়ে ‘আজকের ক্রাইম নিউজ’ পত্রিকাটি প্রতিষ্ঠা করেন। এবং পত্রিকার অধিকাংশ সংবাদ শিরিনের লক্ষাধিক ফলোয়ার সংবলিত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রকাশও পেতো।

জানা গেছে- পত্রিকাটি পাঠক বৃদ্ধি করার লক্ষে শিরিনের জনপ্রিয় ফেসবুক আইডিটি একই পত্রিকার অংশিদার মোহাম্মদ বেল্লাল হোসেন তালুকদার লিটনও অপারেট করতেন। এবং আইডি পাসওয়ার্ড সম্পর্কেও তিনি অবগত ছিলেন।

অপর একটি অসমর্থিত সূত্র জানায়- এই পত্রিকাটির মালিকানা নিয়ে শিরিনের সাথে সম্পাদক প্রকাশক দাবিদার মোহাম্মদ বেল্লাল হোসেন তালুকদার লিটনের বিরোধ দেখা দেয়। যে কারণে শিরিনের নামটিও পত্রিকা থেকে ফেলে দেন তিনি। এনিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা থেকে কথা কাটাকাটি হলে লিটন একপর্যায়ে শিরিনকে দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন। ফলে এখন প্রশ্ন উঠেছে লিটন দেখে নিতে গিয়ে প্রাণটি নিয়ে নিলেন কী না।

তবে শিরিনের এ মৃত্যুর ঘটনায় মোহাম্মদ বেল্লাল হোসেন তালুকদার’র দাবি এটা স্বাভাবিক মৃত্যু।

পুলিশ এবং সূত্রগুলোর এমন ভাবনা অমূলক নয় জানিয়েছে বরিশাল কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বলছেন- তরুণী শিরিন মারা যাওয়ার আগে যে ফেসবুক লাইভ করেছেন তার একটি ভিডিও সংগ্রহ করার পাশাপাশি পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখতে শুরু করেছেন। এবং মারা যাওয়ার কিছুক্ষণের মাথায় তার ফেসবুক বন্ধ হওয়ার কারণটিও খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন।’

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

Releted
কপিরাইট : সর্বস্বর্ত সংরক্ষিত (c) ২০২২
Develper By ITSadik.Xyz