চাঁদপুরে টানা ৪০ দিন জামাতে নামাজ পড়ায় ১৭ বালককে দেয়া হয়েছে বাইসাইকেল পুরস্কার। খান ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বাইসাইকেলগুলো বিতরণ করা হয়।

আগে থেকেই খান ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এমন ঘোষণা দিয়েছিলেন মতলবের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুমন খান। সাধারণত এ ধরনের উদ্যোগ খুবই কম দেখা যায়।

ঘোষণা করা হয়েছিল, যদি কোন বালক টানা ৪০ দিন জামাতের সহিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করতে পারে তাদেরকে একটি করে সাইকেল পুরস্কার দেওয়া হবে।

তারপর থেকেই মসজিদে অনেক বালক নামাজ পড়তে শুরু করে, শেষ পর্যন্ত ১৭ জন বালক টিকে যায়। আরো অনেকেই ছিটকে পড়ে টানা ৪০ দিন নামাজ আদায় করতে পারিনি। এরপর ১৭ জন বালককে পরবর্তীতে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাদেরকে পুরস্কারের সাইকেলগুলো বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন চাঁদপুর মতলবের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুমন খান। তিনি সব কিছুর আয়োজন করেন এবং উনার পক্ষ থেকে সাইকেলগুলি পুরস্কার দেওয়া হয়। এই পুরস্কারের পরে প্রশংসায় ভাসছেন সুমন খান। এরই মধ্যে ফেসবুকে সাইকেল বিতরণের ছবিটি ভাইরাল হয়েছে।

নুসরাতের জন্য কারা পুলিশের আবেগী গান (ভিডিও)

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহানকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় তোলপাড় সারাদেশ। এমন নিষ্ঠুর, বর্বর, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার করতে দাবি জানাচ্ছে দেশবাসী। রিমান্ডে রয়েছেন ঘটনার মূল আসামি মাদ্রাসা অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলা।

এদিকে এমন নিষ্ঠুর, বর্বর, হত্যাকাণ্ডের পর শোক প্রকাশের পাশাপাশি ক্ষোভে ফেটে পড়েছে দেশবাসী। বিভিন্ন জেলা, উপজেলাসহ রাজধানীতে হয়েছে মানববন্ধন।

নুসরাত হত্যাকাণ্ডে শোকের ছায়া নেমে এসেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতেও। পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, কারারক্ষী, বিজিবির অনেক সদস্য ব্যক্তিগতভাবে এ হত্যাকাণ্ডে ধিক্কার জানিয়ে আসামি অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলা ও তার সঙ্গীদের দ্রুত বিচারের দাবি জানাচ্ছেন।

তেমনি ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজীতে পরীক্ষাকেন্দ্রের ভেতর নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় কেঁদেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এক সদস্য। তিনি নুসরাতকে নিয়ে একটি গান লিখেছেন। তাতে সুর দিয়ে নিজের কণ্ঠেই গেয়ে ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করেন।

গতকাল (১৪ এপ্রিল) থেকে ফেসবুকে তার গানের ভিডিওটি আপলোড হয়। এরপর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। অনেকের টাইমলাইনে গানটি দেখা যাচ্ছে।

গানটি ডিজিটাল রেডিও নামের একটি পেজ শেয়ার করেছে যেখানে ৯৩ হাজারের বেশি দেখা হয়েছে ভিডিওটি। মুক্তির জয় নামে একটি পেজ থেকে এর ভিউয়ার সংখ্যা এখন পর্যন্ত ২৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এভাবে ফেসবুকের অনেক পেজে শেয়ার হচ্ছে গানটি।

গানটির কমেন্টে প্রশংসায় ভাসছেন সেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য। অনেকে তাকে স্যালুট জানাচ্ছেন। কেউ কেউ তার প্রশংসায় কমেন্ট করেছেন, আপনি পুলিশ বিভাগের উজ্জল নক্ষত্র আপনাকে জানাই হাজার সালাম।

একজন লিখেছেন, এইরকম দৃঢ় প্রতিবাদী কন্ঠ বিবেককে আবারও নাড়া দিয়ে গেল। উনাকে শ্রদ্ধা এবং ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

এক নারী আইডি থেকে কমেন্ট এসেছে, আপনার মতো সৎ, সাহসী, মানুষ যদি নারীদের পাশে থাকে তবে আমরা নারীরা আর ধর্ষিত হব না। আমরা গোটা নারীজাতি নুসরাত হত্যার বিচার চাই।

ভাইরাল সেই ভিডিওর গায়কের নাম জানা যায়নি। তবে তিনি বাংলাদেশ জেল ডিপার্টমেন্টের একজন কারারক্ষী বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ।

staf.news
admin@news12.us