একটা সময় ছিল যখন বাংলাদেশের কোন অর্থনীতি ছিল না। কিন্তু বাংলাদেশের অর্থনীতি আজ বিশ্বের অন্যতম অর্থনীতি বলে মন্তব্য করেছেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও বিজ্ঞান লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। পৃথিবীর সকল দেশ অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকে কীভাবে এদেশ এত উন্নতি করছে।

তিনি এসব কথা বলেন শুক্রবার (১১ জানুয়ারী) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ আয়োজিত ‘বাংলাদেশ বোটানী অলিম্পিয়াডে’র সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে।



এসময় জাফর ইকবাল বলেন, আজ বাংলাদেশ একটা অবস্থানে চলে এসেছে। মাথাপিছু জিডিপি আয় এখন কোথায় চলে গেছে। বাংলাদেশ নিজের পায়ে দাঁড়াচ্ছে। এখন পাকিস্তানও আমাদের মত হতে চায়।

অনুষ্ঠানে বোটানি অলিম্পিয়াড ঢাকা বিভাগের আহ্বায়ক মোহাম্মদ মোজাদ্দেদী আলফেসানীর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাবি উদ্ভিদবিজ্ঞানবিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. রাখহরি সরকার, বাংলাদেশ বোটানিক্যাল সোসাইটির সভাপতি ড. এম এ গফুরসহ বিশিষ্ট উদ্ভিদবিজ্ঞানীরা। অলিম্পিয়াডে ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের প্রায় অর্ধসহস্রাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয়।



অলিম্পিয়াডে যোগ দিতে আসা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমাদের হাতেই দেশ গড়ার দায়িত্ব। সুন্দরভাবে দেশটা গড়ে তোলার মাধ্যমে তোমরা তোমাদের দায়িত্ব পালন করবে। শিক্ষার্থীদের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিষয়ে পড়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমানে উদ্ভিদবিদ্যা একটি অভিজাত বিষয়।

এর আগে শিক্ষার্থীদের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিষয়ে আগ্রহ বাড়াতে দেশের মোট আটটি বিভাগের বিভিন্ন স্কুল-কলেজে ‘বোটানি অলিম্পিয়াডের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ বোটানিক্যাল সোসাইটি ও জাতীয় বিজ্ঞান জাদুঘর যৌথভাবে এই আয়োজন করে।



বিশ্ববিদ্যালয়ের চার বছরের শিক্ষা দিয়ে ভাল চাকরি সম্ভব নয়: ইউজিসি চেয়ারম্যান”””

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ নগরের জামালখান সিআইইউ ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে ২০১৯ সালের স্প্রিং সেমিস্টারে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের জন্য এই ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠান আয়োজন করে ।

ইউজিসি চেয়ারম্যান তরুণদের দেশ গড়ার চালিকাশক্তি উল্লেখ করে বলেন, দেশের প্রতি ভালোবাসা কিংবা দায়িত্ববোধ বাড়াতে হলে মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শিক্ষা নিতে হবে। সিআইইউ’র শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করে অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম অত্যন্ত চমৎকার।



প্রশাসনিক শাখাতেও রয়েছে গতিশীলতা। শিক্ষার্থীরা যাতে মাদক ও জঙ্গিবাদ থেকে দূরে থাকে, সেদিকে নজর দিতে উপাচার্যকে অনুরোধ জানান তিনি। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার পাশাপাশি তথ্য-বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ও কম্পিউটার জ্ঞানে সমৃদ্ধ হওয়ার পরামর্শ দেন ইউজিসি চেয়ারম্যান।

ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডিন অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল হক খান, স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সের ডিন অধ্যাপক কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ, স্কুল অব ল’র উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন, সিআইইউর বিজনেস স্কুলের ডিন ড. মোহাম্মদ নাঈম আব্দুল্লাহ, প্রক্টর অধ্যাপক ড. এম এম নুরুল আবসার নাহিদ প্রমুখ। ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষার্থী ছাড়াও তাদের অভিভাবক, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে ৪৯টি। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা ১০৪টি। মোট ১৯ লাখ শিক্ষার্থী এখন উচ্চশিক্ষার পাঠ নিচ্ছে।

তবে চট্টগ্রামে গুণগত শিক্ষা ছড়িয়ে দেওয়ার মত বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা হাতেগোনা। যারা সিআইইউতে ভর্তি হয়েছে তারা ঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখানকার প্রতিটি শিক্ষার্থী দেশকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তুলে ধরবে-এমনটাই চাওয়া আমার।



সভাপতির বক্তব্যে সিআইইউর উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, উচ্চশিক্ষায় একটি আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নানামুখী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অত্যাধুনিক ল্যাব স্থাপন, বইয়ে ঠাসা লাইব্রেরি, মনোরম পরিবেশসহ একাধিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার মাধ্যমে নতুন ধারার শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে সিআইইউ বদ্ধপরিকর বলে বক্তব্যে উল্লেখ করেন তিনি।

staf.news
admin@news12.us

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *