সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় পুলিশের এসআইসহ চারজনকে মারধর করে হ্যান্ডকাফ পরা দুই আসামিকে ছিনিয়ে নিয়েছেন যুবলীগ নেতাকর্মীরা।

রোববার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে শ্যামনগরের বোসখালী গ্রামে।

জানা যায়, যাত্রানুষ্ঠান চলাকালে তারানিপুর গ্রামে যুবলীগের হাসানুর রহমান, শাহিনুর রহমান, রেজাউল ও বাবুসহ বেশ কয়েকজন গাঁজা খেয়ে অস্বাভাবিক আচরণ করছিলেন। এ সময় পুলিশ তাদের মধ্যে হাসানুর ও শাহিনুরকে আটক করে হাতে হ্যান্ডকাফ লাগায়।

খবর পেয়ে নিকটস্থ ভেটখালী বাজার থেকে একদল যুবক ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিজেদের যুবলীগ নেতা পরিচয়ে পুলিশের ওপর চাপ দেয় তাদের ছেড়ে দেয়ার জন্য।

এ নিয়ে শুরু হয় বাকবিতণ্ডা। কিন্তু পুলিশ তাদের ছাড়তে অস্বীকৃতি জানালে ওই ক্যাডাররা লোহার রড ও লাইট দিয়ে পুলিশের এসআই আবদুল হাইকে সজোরে আঘাত করে। এ সময় তারা হাসানুর ও শাহিনুরকে জোর করে ছিনিয়ে নেয়।

এতে বাধা দিতে গিয়ে আহত হন এএসআই মিজানুর, কনস্টেবল শাহজালাল ও গ্রামপুলিশ আবু মুসা। এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই লোকজন এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করতে থাকে। পরে শ্যামনগর থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে।

এ সময় ঘটনাস্থলে সরস্বতী পূজা উপলক্ষে যাত্রাপালা চলছিল। এতে পূজা অনুষ্ঠান ও যাত্রাপালা পণ্ড হয়ে যায়।

শ্যামনগর থানার ওসি হাবিল হোসেন বলেন, আমরা তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছি। এ ব্যাপারে শ্যামনগর থানায় মামলা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

দুদকের অভিযানে ওষুধ বিতরণে অনিয়মের সত্যতা মিলেছে

ঢাকা সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতাল থেকে জলাতঙ্ক, এইচআইভি, আইজিসহ অন্যান্য মূল্যবান ভ্যাকসিন ও ওষুধ রোগীদের কাছে সরবরাহ না করে বাইরে বিক্রি করে দিচ্ছে হাসপাতালের একশ্রেণীর কর্মকর্তা-কর্মচারী।

দুদকের হটলইনে (১০৬) এমনই একটি জনগুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ করেন একজন ভুক্তভোগী। অভিযোগের ভিত্তিতে দুর্নীতি দমন কমিশন রোববার ওই হাসপাতাল ও আশপাশের ফার্মেসিতে অভিযান চালায়।

দুদক মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরীর নির্দেশে দুর্নীতি দমন কমিশন ও ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের সমন্বিত টিম আকস্মিক অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু ওষুধ জব্দ করে।

অভিযান প্রসঙ্গে দুদক এনফোর্সমেন্ট অভিযানের প্রধান মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, সরকারি হাসপাতালের ওষুধ বিক্রি করে অবৈধ অর্থের ভাগবণ্টন কিভাবে হয়, দুদক তা অনুসন্ধান করে বের করবে।

অবৈধ সম্পদ অর্জনকারীকে আইনের মুখোমুখি করবে। তিনি বলেন, দুদকের প্রাথমিক অনুসন্ধানেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তথা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবৈধ উপায়ে সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এদিকে অভিযানকালে সমন্বিত টিম ড্রাগ লাইসেন্সবিহীন একটি ফার্মেসির সন্ধান পায় এবং সেই ফার্মেসি দুদক টিমের উপস্থিতিতে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর সিলগালা করে দেয়।

হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে দুদক টিম সরকারিভাবে সরবরাহকৃত ওষুধ রোগীদের বিনামূল্যে বিতরণ না করে অবৈধভাবে বাইরে সরবরাহের তথ্য পায়।

staf.news
admin@news12.us

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *