সংলাপে অংশ নিতে নির্বাচন বাতিল চান ফখরুল

একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবার সংলাপের ডাক দিয়েছেন। সে সংলাপে অংশগ্রহণ বিষয়ে মির্জা ফখরুল আজ বলেন, সংলাপের এজেন্ডায় যদি বিগত নির্বাচন বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীন নির্বাচনের বিষয় থাকে তাহলে আমরা সংলাপ নিয়ে চিন্তা ভাবনা করব।



আজ সোমবার দুপুরে সিলেটে হজরত শাহজালালের মাজার জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর প্রধানমন্ত্রী আবার সংলাপের ডাক দিয়েছেন। তবে সংলাপের এজেন্ডা কী হবে সেটা জানানো হয়নি।



মির্জা ফখরুল বলেন, এজেন্ডায় যদি বিগত নির্বাচন বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীন নির্বাচনের বিষয় থাকে তাহলে আমরা সংলাপ নিয়ে চিন্তা ভাবনা করব। কারণ নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যে সংলাপ হয়েছিল তা অর্থবহ হয়নি।

জামায়াত নিয়ে ড. কামালের বক্তব্য প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জামায়াত নিয়ে কামালের বক্তব্য গণফোরামের। এটা ঐক্যফন্টের বক্তব্য নয়।

আবারও সিএমএইচে এরশাদ”””

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আবারও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হয়েছেন। সেখান থেকেই পার্টির দাফতরিক কাজ করছেন তিনি।



পার্টির একাধিক সূত্র বলছে, এরশাদের শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। তিনি উঠে দাঁড়াতে পারছেন না। তাই শনিবার সিএমএইচে যান এরশাদ।

এদিকে জাতীয় পার্টির আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, রক্তে হিমোগ্লোবিনের সমস্যা নিয়ে ভুগতে থাকা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এবার যকৃতের জটিলতার চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন।



সদ্য শেষ হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গত ১০ ডিসেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান ‘অসুস্থ’ এরশাদ। কয়েক দফা ফেরার তারিখ পরিবর্তন করে দেশে আসেন ২৬ ডিসেম্বর রাতে।

পরের দিন বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে সংবাদ সম্মেলন করে ঢাকা-১৭ আসন থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দেন সংসদের বিরোধী দলনেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।



এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পার্টির চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী বলেন, স্যারের কোনো সমস্যা নেই। নিয়মিত চেকআপের জন্য সিএমএইচে আছেন। সেখান থেকেই পার্টির দাফতরিক কাজ করছেন।

রাণীনগরে রেলের জায়গা নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ সদস্য আহত””’



নওগাঁর রাণীনগরে রেলওয়ের জায়গা দখল করাকে কেন্দ্র করে দখলদার দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় ইট ও পাথরের আঘাতে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

সোমবার দুপুরে রাণীনগর রেলওয়ের টেশনের পাশে রেলওয়ের জায়গায় এ ঘটনা ঘটে। আহত পুলিশ সদস্যকে রাণীনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।



জানা গেছে, রাণীনগর রেলওয়ের স্টেশনের পাশে রেলওয়ের সরকারি জায়গা দখল করাকে কেন্দ্র করে দখলদার দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় রাণীনগর থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে একটি গ্রুপ পুলিশের ওপরে ইট ও পাথর ছোড়ে। এতে করে মো. আব্দুর রহমান নামে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

রাণীনগর থানার ওসি এএসএম সিদ্দিকুর রহমান জানান, রেলওয়ের জায়গা দখল করাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *