যতো বড় জয়, ততো বড় শঙ্কা: মোহাম্মদ নাসিম

বিরাট বিজয়ের পাশাপাশি গভীর চক্রান্তের বিষয়েও খেয়াল রাখতে দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘যতো বড় জয় ততো বড় শঙ্কা আছে। বিপুল বিজয়ে আত্মতুষ্টি বা আত্মহারা হওয়ার কোনো কারণ নেই। ’৭৫-এর আগেও আমরা অনেক বড় বিজয় এসেছিল। এ পরই আমরা বঙ্গবন্ধুকে হারিয়েছি।’



সোমবার রাজধানীর কাকরাইলস্থ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ নাসিম এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এবারও বড় বিজয়ে বেশি খুশি হওয়ার কোনো কারণ নেই। ষড়যন্ত্রকারীরা তাদের ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। এদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে।’



মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘যত সফলতা আসবে ততই চক্রান্তকারীরা নতুন রূপে আবির্ভূত হবে। বেশি আত্মপ্রত্যয়ী না হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থেকে এগিয়ে যেতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রতি অনুগত থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‌‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণের দেয়া রায়ে প্রমাণ হয়েছে সাম্প্রদায়িক ও মৌলবাদি শক্তি বাংলার মাটিতে আর কোন দিন মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না।’

আরও পড়ুন: নতুন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক ২১ জানুয়ারি



তিনি বলেন, ‘রাজাকার এবং স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে চিরতরে নির্মূল করার জন্য জনগণের কাছ থেকে যে ম্যান্ডেট পেয়েছি, এটা আমরা অব্যাহত রাখার চেষ্টা করবো। এদেশে সাম্প্রদায়িক শক্তি যে মাথাচাড়া দিতে পারবে না, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সেটা প্রমাণ হয়ে গেছে।’

বঙ্গবন্ধু একাডেমির সভাপতি নাজমূল হকের সভাপতিত্বে সভাপতিত্বে সভায় কৃষক লীগ নেতা এম এ করিম, সংগঠনের মহাসচিব হুমায়ুন কবির মিজি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। বাসস

আবারও সিএমএইচে এরশাদ””’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আবারও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হয়েছেন। সেখান থেকেই পার্টির দাফতরিক কাজ করছেন তিনি।



পার্টির একাধিক সূত্র বলছে, এরশাদের শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। তিনি উঠে দাঁড়াতে পারছেন না। তাই শনিবার সিএমএইচে যান এরশাদ।

এদিকে জাতীয় পার্টির আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, রক্তে হিমোগ্লোবিনের সমস্যা নিয়ে ভুগতে থাকা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এবার যকৃতের জটিলতার চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন।



সদ্য শেষ হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গত ১০ ডিসেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান ‘অসুস্থ’ এরশাদ। কয়েক দফা ফেরার তারিখ পরিবর্তন করে দেশে আসেন ২৬ ডিসেম্বর রাতে।

পরের দিন বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে সংবাদ সম্মেলন করে ঢাকা-১৭ আসন থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দেন সংসদের বিরোধী দলনেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।



এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পার্টির চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী বলেন, স্যারের কোনো সমস্যা নেই। নিয়মিত চেকআপের জন্য সিএমএইচে আছেন। সেখান থেকেই পার্টির দাফতরিক কাজ করছেন।

রাণীনগরে রেলের জায়গা নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ সদস্য আহত””’



নওগাঁর রাণীনগরে রেলওয়ের জায়গা দখল করাকে কেন্দ্র করে দখলদার দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় ইট ও পাথরের আঘাতে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

সোমবার দুপুরে রাণীনগর রেলওয়ের টেশনের পাশে রেলওয়ের জায়গায় এ ঘটনা ঘটে। আহত পুলিশ সদস্যকে রাণীনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।



জানা গেছে, রাণীনগর রেলওয়ের স্টেশনের পাশে রেলওয়ের সরকারি জায়গা দখল করাকে কেন্দ্র করে দখলদার দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় রাণীনগর থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে একটি গ্রুপ পুলিশের ওপরে ইট ও পাথর ছোড়ে। এতে করে মো. আব্দুর রহমান নামে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

রাণীনগর থানার ওসি এএসএম সিদ্দিকুর রহমান জানান, রেলওয়ের জায়গা দখল করাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *