জামায়াতকে নিয়ে অতীতেও রাজনীতি করিনি, ভবিষ্যতেও করব না: ড.কামাল

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, আমরা জামায়াতকে নিয়ে অতীতেও রাজনীতি করিনি, ভবিষ্যতেও করব না।



শনিবার বিকালে রাজধানীর আরামবাগে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির এক সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, আমরা অতীতে জামায়াতকে নিয়ে রাজনীতির চিন্তাও করিনি। ভবিষ্যতেও পরিষ্কার যে, জামায়াতকে নিয়ে রাজনীতি করব না।

বিএনপিকে জামায়াত ছাড়তে বলবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটি বলা যেতে পারে।



জামায়াতকে মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, জামায়াতের সঙ্গে অতীতে যেটা হয়েছে, সেটি অনিচ্ছাকৃত ভুল। তারা যে ধানের শীষে জামায়াতের ২২ জনকে মনোনয়ন দেবে, সেটি আমরা জানতাম না।

নির্বাচন নিয়ে ড. কামাল বলেন, সরকারি দল ছাড়া আর কেউ সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে, সেটা বলছে না। চাইলেও বলা সম্ভব না। এ সময় দেশের স্বার্থে আগামী দু-তিন মাসের মধ্যে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানান ড. কামাল।

গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের পর দলটির পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের একটি লিখিত বক্তব্য দেওয়া হয়।



তাতে বলা হয়, তাড়াতাড়ি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করতে গিয়ে অনিচ্ছাকৃত যেসব ভুল-ত্রুটি সংঘটিত হয়েছে, তা সংশোধন করে ভবিষ্যতের জন্য সুদৃঢ় জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, আগামী ২৩ ও ২৪ মার্চ ঢাকায় দলটির জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। শনিবারের কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় গণফোরামের সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করার প্রতি বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা অনতিবিলম্বে জেলায় জেলায় সাংগঠনিক সফর শুরু করবেন এবং ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনকে’ জোরদার করা হবে।



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *